আজ | শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০
Search

পদত্যাগ করলেন মিসবাহ

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ৯:৫৭ অপরাহ্ন, ১৫ অক্টোবর, ২০২০

chahida-news-1602777464.jpg
ফাইল ছবি

পাকিস্তান ক্রিকেটের প্রধান নির্বাচকের পদ থেকে পদত্যাগ করার কথা জানালেন মিসবাহ উল হক। একসঙ্গে প্রধান নির্বাচক ও প্রধান কোচের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। তাই সমালোচনা হচ্ছিল শুরু থেকেই। অবশেষে এই দ্বৈত দায়িত্ব থেকে সরে এলেন। প্রধান নির্বাচকের পদ ছাড়লেও জাতীয় দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব থাকবেন মিসবাহ।

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে বুধবার এক সংবাদ সম্মেলন করে পদত্যাগের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক মিসবাহ। এরপরই পিসিবি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানায়, আগামী ১ ডিসেম্বর দায়িত্ব নেবেন নতুন প্রধান নির্বাচক। তখনই পদত্যাগ কার্যকর হবে মিসবাহর।

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পরই মিকি আর্থারকে সরিয়ে প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয় মিসবাহকে। একই সঙ্গে প্রধান নির্বাচক হিসেবেও তাকে মনোনীত করে পিসিবি। পাকিস্তানের ক্রিকেট ইতিহাসে একসঙ্গে দুটি দায়িত্ব নেয়ার ঘটনা সেটাই প্রথম ছিল। এ নিয়ে সে সময় যথেষ্ট সমালোচিত হয়েছিল মিসবাহ এবং পিসিবি।

করোনার আগে এবং পরে অনুষ্ঠিত সিরিজগুলোতে দলের পারফরম্যান্স আশানুরূপ না হওয়ায়, সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। একই সঙ্গে দুটি বড় দায়িত্ব সামলাতে গিয়ে কোচিংইয়ে মনোযোগী হতে পারছেন না বলে মন্তব্য করেন সাবেক ক্রিকেটাররা।

আনুষ্ঠানিক ঘোষণায় মিসবাহ বলেছেন, ‘যখন পিসিবি থেকে আমাকে প্রধান কোচ এবং প্রধান নির্বাচকের দায়িত্ব দেওয়া হয় তখন আমি বলেছিলাম যে আমি দায়িত্ব দুটি পালন করতে পারব। তবে আমি এটাও বলেছিলাম যদি আমি কখনও অনুভব করি যে, একাধারে দুটি দায়িত্বে থাকা আমার জন্য কঠিন হচ্ছে, তাহলে আমি সরে দাঁড়াব।’

মিসবাহ আরও জানিয়েছেন, ‘দ্বৈত দায়িত্ব পুরোপুরি উপভোগ করেছি আমি। তবে এক বছর পর মনে হচ্ছে আমার পুরোটা সময়, শক্তি ও মনোযোগ একটি ভূমিকায় ধাকা উচিত। আর কোচিং আমার আবেগের জায়গা। অবশ্যই আমার ফোকাস থাকবে পাকিস্তান দলটিকে যতটা সম্ভব পরিণত করে তোলা।’

  

আপনার মন্তব্য লিখুন