আজ | শনিবার, ৮ আগস্ট ২০২০
Search

করোনা উপসর্গ : ৮ জেলায় মৃত্যু ১৮ জনের

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ৯:১৬ অপরাহ্ন, ১৯ জুন, ২০২০

chahida-news-1592579765.jpg
ফাইল ছবি

দেশের ৮ জেলায় করোনা উপসর্গ নিয়ে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। জানাগেছে নওগাঁয় একজন; মাদারীপুরে চারজন; বরিশালে তিনজন; গোপালগঞ্জে একজন; খুলনায় দুইজন; ফেনীতে দুইজন এবং মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ভানুবিল গ্রামে করোনার উপসর্গ নিয়ে ওয়াহিদ মিয়া (৬০) ও প্রতিবেশী আলতা মিয়া (৬২) নামের দুই বৃদ্ধ মারা গেছেন। রমুজ মিয়া (৫৭) নামে অপর এক প্রতিবেশী বৃদ্ধ অসুস্থ হয়ে নিজ বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন। প্রায় ৮ ঘণ্টা ব্যবধানে দুই জনের মৃত্যু এবং অপর একজন অসুস্থ হওয়ায় এলাকায় করোনা আতংক বিরাজ করছে।

মান্দায় স্যানিটারী ইন্সপেক্টরের মৃত্যু: নওগাঁর মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্যানিটারী ইন্সপেক্টর আনিসুর রহমান (৫৪) করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধনী অবস্থায় তিনি মারা যান। তিনি মান্দা উপজেলার তেঁতুলিয়া ইউনিয়নের ঘোনা গ্রামের মৃত সৈয়দ আলী মন্ডলের ছেলে। দীর্ঘদিন ধরে রাজশাহী শহরের শিরোইল এলাকায় সপরিবারে বসবাস করে আসলেও তিনি প্রতিদিন মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাতায়াত করতেন।

মাদারীপুরে ৪ জনের মৃত্যু: মাদারীপুরে করোনার উপসর্গ নিয়ে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, করোনার উপসর্গ নিয়ে মাদারীপুরের থানতলী এলাকার আজাদ খান শুক্রবার সকালে, রাস্তি এলাকার আলমগীর বেপারী গতরাত ৮টার দিকে এবং দূর্গাবর্দ্দী এলাকার স্কুল শিক মো. আনিচুর রহমান ও কেন্দুয়া এলাকার মৃণাল তালুকদার গতরাতে মারা যান।

বরিশালে তিনজনের মৃত্যু: বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ছয় ঘণ্টায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়া তিনজনের মধ্যে একজন নারী। শুক্রবার দুপুর ২টা ২০ মিনিটে একজন, ২টা ৫ মিনিটে একজন ও সকাল সাড়ে ৭টায় অন্যজনের মৃত্যু হয়। তাদের বয়স যথাক্রমে ৩৫, ৫৫ ও ৬৬ বছর।

ময়মনসিংহে ২ জনের মৃত্যু: ময়মনসিংহে শহরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ জ্বর-সর্দি-কাশি নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন শহরের কালীবাড়ি এলাকার ৭৫ বছরের এক বৃদ্ধ ও জেলার নান্দাইল উপজেলার ২০ বছরের এক তরুণ।

গোপালগঞ্জে এক ব্যক্তির মৃতু: গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে আশরাফুজ্জামান বাবু (৪০) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে কাশিয়ানী উপজেলার পোনা গ্রামের নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান।

খুলনায় দু’জনের মৃত্যু: খুলনায় করোনা উপসর্গ নিয়ে জরিনা বেগম (৬০) ও মো. আলী (৬০) নামের দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টা ১০ মিনিটে জরিনা ও ১০টা ৪০ মিনিটে মো. আলী মারা যান। খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালের ফু কর্নারে তাদের মৃত্যু হয়।

ফেনীতে ৩ জনের মৃত্যু: ফেনীতে করোনার উপসর্গ নিয়ে তিন জন মারা গেছে। বৃহস্পতিবার বিভিন্ন সময়ে জেলার ফেনী ও সোনাগাজী উপজেলায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে দু’জন সোনাগাজীর ও একজন ফুলগাজী উপজেলার বাসিন্দা। তাদের একজনের বসয় আশি’র উর্দ্ধে, একজন ষাটোর্ধ ও অপর একজনের বয়স পঞ্চাশোর্ধ।

  

আপনার মন্তব্য লিখুন