আজ | মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০
Search

ক্ষমা চাইলেন কিম জং-উন

চাহিদা নিউজ ডেস্ক | ৯:১০ অপরাহ্ন, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

chahida-news-1601046620.jpg

দক্ষিণ কোরিয়ার এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উন ক্ষমা চেয়েছেন বলে দাবি করেছে দক্ষিণ কোরিয়া। কিমের ক্ষমা চাওয়ার এই ঘটনাটিকে একটি বিরল ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

সিউল জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার জলসীমায় সে দেশের সেনাদের হাতে দক্ষিণ কোরীয় এক ব্যক্তি ধরা পড়েন। এরপর তাকে মাথায় গুলি করে হত্যা করা হয়। হত্যার পর শরীর আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়। উত্তর কোরিয়ার সেনাদের এমন কর্মকাণ্ড নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ায় ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের কার্যালয়, ব্লু হাউজ জানায়- দেশটির প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনকে পাঠানো চিঠিতে ক্ষমা প্রার্থনা করেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উন। চিঠিতে কিম জং-উন বিষয়টি ‘লজ্জাজনক’ ঘটনা বলে উল্লেখ করেন। এ ঘটনায় মুন ও দক্ষিণ কোরিয়ার জনগণকে এভাবে হতাশ করায় তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন।

চিঠির বরাত দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় নিরাপত্তাবিষয়ক পরিচালক সুহ হুন বলেন, হত্যার তদন্ত প্রতিবেদনও দক্ষিণ কোরিয়াকে উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে দেওয়া হয়েছে। উত্তর কোরিয়া এ প্রতিবেদনে বলেছে, তাদের জলসীমায় প্রবেশের পর ওই ব্যক্তি নিজের পরিচয় দিতে পারেননি। তিনি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তার মাথায় ১০টির বেশি গুলি করা হয়। উত্তর কোরিয়া দাবি করেছে, তারা ওই ব্যক্তির মৃতদেহ পোড়াননি।

  

আপনার মন্তব্য লিখুন